এবছর পেঁয়াজ আমদানি নয়, উদ্বৃত্ত থাকবে : কৃষিমন্ত্রী

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

এবছর দেশে কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে পেঁয়াজ উদ্বৃত্ত থাকবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। গতকাল শুক্রবার বিকেলে খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে ‘জাতীয় সবজি মেলা ২০২০’ উদ্বোধন শেষে তিনি একথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে আমরা ধান-চালে উদ্বৃত্ত দেশ। আমাদের ৩০ থেকে ৪০ লাখ টন আলু উদ্বৃত্ত রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে কৃষিকে লাভজনক করতে হলে বহুমুখীকরণ করতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা সবজি চাষের অনেক নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছি। আমাদের কাছে যে প্রযুক্তি আছে তা ব্যবহার করতে পারলে শুধু দেশের নয়, আন্তর্জাতিক বাজারেও সবজি রপ্তানি করতে পারবো। সবজি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে সম্ভাবনাময় একটি খাত।

পেঁয়াজ সংকট প্রসঙ্গে আব্দুর রাজ্জাক বলেন, পেঁয়াজের জন্য আমরা ভারতের ওপর নির্ভরশীল ছিলাম। তারা হঠাৎ করে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিলে আমরা বিপদে পড়ে যাই। এরপর থেকে শুধু ভারতের ওপর নির্ভরশীল থাকলেই হবে না। আমাদের কাছে পেঁয়াজ উৎপাদনের যে প্রযুক্তি আছে, তাতে আমরা পেঁয়াজ উৎপাদনে উদ্বৃত্ত থাকবো। সমস্যা হচ্ছে, কৃষক পেঁয়াজ উৎপাদন করতে চায় না। সেকারণে আমরা বাণিজ্যমন্ত্রীকে বলেছি, এবছর মৌসুমে যেন পেঁয়াজ আমদানি করা না হয়। কৃষক যেন পেঁয়াজ উৎপাদন করে লাভ করতে পারে। মেলা উদ্বোধনকালে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এবারের সবজি মেলায় বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন, কৃষি বিপণন অধিদপ্তর, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, কৃষি তথ্য সার্ভিস, মেটাল এগ্রো, গ্রিন সেভার্স, এসিআই এগ্রো বিজনেস, কৃষক বাংলা এগ্রো প্রোডাক্টসহ বেশ কিছু সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। উদ্বোধন শেষে কৃষিমন্ত্রী বিশেষ অতিথিসহ সবজি মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন।

 

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.