একুশে বইমেলার ২৩তম দিনে ৭টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

খবর বিজ্ঞপ্তি

অতিবাহিত হলো একুশে বইমেলা, খুলনা’র ২৩ তম দিন। সকালে মেলার মঞ্চের কার্যক্রম শুরু হয় বিতর্ক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে। খুলনার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিতার্কিকগণ প্রস্তাবনার পক্ষে বিপক্ষে যুক্তি উপস্থাপনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানকে প্রানবন্ত করে তোলেন। প্রতিযোগিতায় সরকারি করোনেশন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, খুলনা দল ১ম স্থান, গভ: ল্যাবরেটরি হাইস্কুল, খুলনা দল ২য় স্থান এবং খুলনা জিলা স্কুল, খুলনা দল ৩য় স্থান অধিকার করে। বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন বঙ্গবন্ধু একাডেমি খুলনার প্রধান নির্বাহী ইঞ্জিনিয়ার শেখ আব্দুল জব্বার, বিভাগীয় সরকারি গণগ্রন্থাগার খুলনার সহকারী পরিচালক ড. মোঃ আহছান উল্যাহ, খুলনা সরকারি মহিলা কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ শহীদুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ ডিবেটিং সোসাইটি খুলনার পরিচালক এ এইচ এম জামাল উদ্দিন।

বিকালে মেলা মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে ডাক বিভাগীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বয়রা, খুলনার ছাত্রছাত্রীবৃন্দ। পরবর্তীতে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনায় ছিল লেখিকা সংঘ, খুলনা। গতকাল মেলা মঞ্চে আলেয়া নাসরিণ আলো রচিত কাব্যগ্রন্থ ‘ স্বপ্নের সাত রঙ ’, মোশাররফ হোসেন রচিত ‘ জীবনের চাওয়া পাওয়া ’, ‘হয়ে উঠছি বনসাই’ স›দ্বীপ কুমার ঘোষ রচিত ‘সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ ’ ইলিয়াস হোসেন রচিত ‘ রিক্ত হস্তে আসিনি ’ আশীষ কুমার দাস সম্পাদিত ‘ সুবর্ণা হৃদয়ের আলপনা ’ এবং মোঃ আরফান আলী রচিত প্রবন্ধ সংকলন ‘ মানুষের শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ অত্যন্ত মূল্যবান সম্পদ ’ শীর্ষক মোট ৭টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচিত হয়। আজকের সেমিনার পর্বে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সরকারি আজম খান কমার্স কলেজের সহকারী অধ্যাপক তারক চাঁদ ঢালি। প্রবন্ধের শিরোনাম ছিল ‘ ভাষার নামে দেশ- মর্যাদা রক্ষার দায়িত্ব সবার ’।

প্রধান অতিথি ও মূখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ টি এম জাকির হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাহিত্য সংসদ, বয়রা, খুলনার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কবি মশিরুজ্জামান। স্বাগত বক্তা ছিলেন খুলনা বিভাগীয় সরকারি গণগ্রন্থাগারের সহকারী পরিচালক ড. মোঃ আহছান উল্যাহ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সাহিত্যিক অধ্যাপক মমতাজ বেগম বিজলী। সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনায় ছিল বনলতা সাংস্কৃতিক একাডেমী এবং ক্লাসিক সঙ্গীত একাডেমীর শিল্পীবৃন্দ। সাপ্তাহিক ছুটির দিনে প্রচুর দর্শক শ্রোতা মেলা মঞ্চের সাংস্কৃতিক আয়োজন উপভোগ করে। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন অধ্যাপক শেখ আজিজুল ইসলাম টিপু , শাহনাজ সুলতানা এবং মাহাবুব হোসেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.