একমাত্র ভাইকে হারিয়ে বোনের আবেগঘন ‘ফেসবুক স্ট্যাটাস’

দ: প্রতিবেদক

দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন’র স্টাফ রিপোর্টার নাদিম উল আলম পরিবারের একমাত্র ছেলে। তার বোন নাহিদা নিশা ঢাকায় দুরন্ত টিভিতে ভয়েস আর্টিষ্ট হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। তার একমাত্র ভাইয়ের মৃত্যুর পর তিনি ফেসবুকে এক আবগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

যেটি হুবহু দক্ষিণাঞ্চল পত্রিকার পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো, ‘আমার ভাইয়া, একমাত্র ভাইয়া। গতকাল রাত্রে হঠাৎ স্ট্রোকে মারা গেছে।

ভাইয়া খুলনা বেতারে সুন্দরবন-এর উপর একটি ডকুমেনটরী অনুষ্ঠানের রিপোর্টার, উপস্থাপক ও পরিচালক। অনেক মঞ্চ নাটকে অভিনয় করেছে, নির্দেশনা দিয়েছে শিশুতোষ নাটকের। ভাইয়া খুলনা প্রেস ক্লাবের সদস্য ছিলেন ও দৈনিক দক্ষিণাঞ্চল পত্রিকার সাংবাদিক। দীর্ঘদিন দৈনিক জন্মভূমিরও সাংবাদিক ছিল।

ভাইয়া খুলনার অপরাজেয় বাংলা ও রূপান্তর নামের প্রসিদ্ধ দুটি এনজিও-এর কাজে সম্পৃক্ত ছিল। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করতো। আর ঞযব উধরষু ঝঃধৎ এর খুলনা সহ বিভিন্ন অঞ্চলের ইভেন্ট প্রজেক্টের কাজ করেছে। ভাইয়ার নিজের প্রতিষ্ঠান “খুলনা শিশু মঞ্চ” ২০০৩ থেকে শিশুদের নিয়ে কাজ করে চলেছে।

আসলে আমি……..ভাইয়াকে নিয়ে অনেক প্রাউড ফিল করি। আমার ভাইয়াকে দেখতে সকালে রওনা হব। এখনো বিশ্বাস হচ্ছে না যে, শমনী, স্বচ্ছকে ফেলে ভাইয়া………. আমার ভাবী বারবার আমাকে বলছে নাদিম আসবে, আমাকে বলেছে। স্বচ্ছকে ছাড়া ও ঘুমায় না। আর আমি তোমার ভাইয়াকে ছাড়া থাকিনি কোনোদিন, ও আাসবে। আমি কেমনে ওদের সামলাবো?

আমার আব্বু-আম্মু………..!!!!

আমার ভাইটার জন্য, ভাইয়ার ছেলে-মেয়ের জন্য, আমাদের জন্য এখন আল­াহই ভরসা।

ভাইয়া আমার সাথে ফোনে কথা বলতো না বললেই চলে। ভাইয়া চিঠি লিখতো আমাকে! আর এসএমএস ও দিত। অনেক কথা শেয়ার করত, লিখে কিংবা সরাসরি।

ভাইয়া, তুমি আছো, আমার বিশ্বাস।

ভাইয়া………আমি ‘বুন্ডি’ তোমার।

ভাইয়া, আল­াহ তোমাকে বেহেস্তে নিবে।

আমাদের দেখা হবে ভাইয়া,

ভাল থেকো।’

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.