ঈদেও চালু থাকবে শেখ পরিবারের করোনাকালীন মানবিক সেবা

এফ এম হাফিজুল ইসলাম
পবিত্র ঈদ-উল আযহায় চালু থাকবে শেখ পরিবারের করোনাকালীন মানবিক সেবাসমূহ। খুলনাবাসীর সংকটময় মুহূর্তে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দিনরাত ২৪ ঘণ্টাতেই সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস, শহীদ শেখ আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক, শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক এবং টেলিমেডিসিন সেবা পাবেন সেবা গ্রহণেচ্ছুরা। হটলাইন ০১৪০৩-৪৭৭০৯৭ নম্বরে ফোন করলেই এসব সেবা পাওয়া যাবে। শেখ পরিবারের এমন একটি সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাধারণ মানুষরা।
জানা গেছে, গত ১২ জুন খুলনায় শেখ পরিবারের পক্ষ থেকে অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস ও ২৯ জুন থেকে দুটি অক্সিজেন ব্যাংক চালু করা হয়। পরবর্তীতে খুলনাবাসীকে মোবাইলে চিকিৎসার পরামর্শ দেওয়ার জন্য খোলা হয় টেলিমেডিসিন সেবা। এসকল সেবায় নিয়োজিত নগর যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দিনরাত মানবিক সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। কাকডাকা ভোর থেকে গভীর রাত অবধি বিভিন্ন শিফটে ভাগ হয়ে এসব নেতাকর্মীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে ছুটে বেড়াচ্ছেন। জীবনের সর্বোচ্চ ঝুঁকি নিয়ে করোনা রোগীদের সেবায় অক্সিজেন সরবরাহ কিংবা অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের মতো মানবীয় কাজে সহায়তা করছেন তারা। এতে করে খুলনা মহানগর যুবলীগ ও মহানগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা ও বিশ^াস এবং শেখ পরিবারের প্রতি ভালবাসা অনেকাংশেই বেড়েছে। নগরবাসী মনে করেন- শেখ পরিবারের এমন সব অকল্পনীয় উদ্যোগ এবং নেতাকর্মীদের দুর্বার ছুটে চলা দিনগুলো স্মরণীয় হয়ে থাকবে।
এ বিষয়ে নগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিনকে বলেন, ‘সাধারণ মানুষের চাহিদার কথা বিবেচনা করে ঈদ-উল আযহার দিনগুলোতে অ্যাম্বুলেন্স, অক্সিজেন ব্যাংক এবং টেলিমেডিসিন সেবা সার্বক্ষণিক চালু রাখা হয়েছে। সাধারণ মানুষ যাতে ছুটির দিনে দুর্ভোগে শিকার না হন সেজন্য শেখ পরিবার এমন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।’
নগর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিনকে বলেন, ‘পবিত্র ঈদ-উল আযহার প্রতিটি দিনই ২৪ ঘণ্টা আমাদের সেবাসমূহ চালু থাকবে। নগরবাসীর যাতে কোন সমস্যা না হয় সেজন্য শেখ পরিবার সেবাগুলো চালু রাখার নির্দেশনা দিয়েছেন। যেকোন সংকটে আমরা যেমন মানুষের পাশে ছিলাম, ভবিষ্যতেও থাকবো, ইনশাআল্লাহ।’

‌দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ জে এফ জয়

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *