ইথিওপিয়ার সেনাবাহিনী প্রধান গুলিতে নিহত

 

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

ইথিওপিয়ার সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল সিয়ারে মেকননেন ও আরও অন্তত তিন জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা উত্তরাঞ্চলীয় আমহারা রাজ্যে এক অভ্যুত্থান প্রচেষ্টাকালে নিহত হয়েছেন। সেনাবাহিনীর এক জেনারেলের নেতৃত্বে ওই অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা চালানো হয়, রবিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এ ঘটনায় আমহারা রাজ্য সরকারের প্রধান আম্বাকিউ মেকননেন ও তার উপদেষ্টাও নিহত হয়েছেন। ওই অঞ্চলের নিরাপত্তা প্রধান জেনারেল আসামনিউ সিগে অভ্যুত্থানের ষড়যন্ত্র করেছিলেন বলে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।

ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদের সরকার আঞ্চলিক প্রভাবশালীদের ক্রমবর্ধমান চাপে পড়েছে। এসব অঞ্চলের মধ্যে আমহারা অন্যতম। এই অঞ্চলটি ইথিওপিয়ার বাড়তে থাকা নৃগোষ্ঠীগত সহিংসতার কেন্দ্রে হয়ে উঠেছে।

ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবা থেকে সরকারি এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, আসামনিউ প্রকাশ্যে নৃগোষ্ঠীর মিলিশিয়াদের নিজের বাহিনীভুক্ত করছিলেন, কীভাবে তার এ তৎপরতা নিয়ন্ত্রণ করা যায় তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী আবির মিত্র রাজ্য প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কেন্দ্রীয় কর্মকর্তারা বৈঠক করার সময় তাদের ওপর হামলা হয়।

এক সপ্তাহ আগে আসামনিউ প্রকাশ্যে আমহারা জনগোষ্ঠীকে অস্ত্রে সজ্জিত হওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন। ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়া এ ঘটনার ভিডিও রয়টার্সের এক প্রতিবেদকও দেখেছেন। আমহারা জনগোষ্ঠী ইথিওপিয়ার বৃহত্তম নৃগোষ্ঠী।

শনিবার রাতে সামরিক পোশাক পরা ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জানান, ওই দিন সকালে আমহারার রাজধানী বাহির দারে একটি অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা হয়েছে এবং হতাহতদের মধ্যে ইথিওপিয়ার চিফ অব স্টাফ সিয়ারে মেকননেনও আছেন। তার কাছাকাছি থাকা লোকেরাই তাকে গুলি করেছে, বলেছেন আবি। রবিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, সিয়ারেকে তার দেহরক্ষীরাই গুলি করে হত্যা করেছে।

অধিকাংশ ষড়যন্ত্রকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে আমহারায় স্পেশাল ফোর্সের দায়িত্বে থাকা এক জেনারেল রবিবার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে জানিয়েছেন। এ ঘটনার পর ইথিওপিয়ায় ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে বলে বিভিন্ন প্রতিবেদনে জানা গেছে। বাহির দারের বাসিন্দারা ব্যাপক গোলাগুলির শব্দ শোনার কথা জানিয়েছেন।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *