ইউক্রেন সংকট সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশও প্রভাব ফেলেছে: পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাব সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশও পড়েছে। কোনো হতাশা নয়, আমাদেরকে সব দুর্যোগ ধৈর্যের সঙ্গে মোকাবিলা করতে হবে।

জননেত্রী শেখ হাসিনা করোনার সময়ে সংকট মোকাবিলা করেছেন বলেই বাংলাদেশ এখনো মাথা উচুঁ করে দাঁড়িয়ে আছে।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শুক্রবার (১২ আগস্ট) বিকেলে নাটোরের সিংড়া উপজেলার কলম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি নাসির উদ্দীনের সভাপতিত্বে সভায় প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু বারবার কারা অভ্যন্তরে কাটিয়েছেন। এ দেশের মাটি ও মানুষের সেবায় তিনি নিজের জীবনকে বিসর্জন দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল ঘাতকরা। শিশু রাসেলকেও ক্ষমা করতে পারেনি তারা। প্রাণভিক্ষাও দেয়নি। কতটা পাষাণ ছিল তারা।

তিনি বলেন, খন্দকার মোশতাক ৩ মাসও ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। বৈঈমানদের পরিণতি ভয়াবহ হয়। যারা বঙ্গবন্ধুকে খুনে জড়িতদের বিএনপি সরকার পুরস্কৃত করেছিল। তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছিল। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্ণ হয়েছে। স্বাধীনতা বিরোধীরা ২৮ বছর ক্ষমতায় থেকে শোষণ, নিপীড়ন করেছে।

 

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, সিংড়ার মাটিতে ৩৭ বছর যারা ক্ষমতায় ছিল, তারা জনগণের কল্যাণে কাজ করেনি। রাজনীতিকে সন্ত্রাস ও দুর্নীতির রাজ্য পরিণত করেছিল। রাজাকারদের পুনর্বাসন করেছিলেন খুনি জিয়াউর রহমান। তারা পবিত্র সংসদকে অপবিত্র করেছে। কালো আইন পাস করে কালো অধ্যায় রচনা করেছিল। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে এনে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকরের দাবি জানান তিনি।

পলক বলেন, আমি আজীবন আপনাদের পাশে আছি, থাকব। যে কোনো দুর্যোগ, বিপর্যয়ে সাধ্যমত পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। ১৩ বছর আগে সিংড়ার প্রত্যকটি এলাকা অন্ধকারে ছিল। আমরা ১৩ বছরে সিংড়াকে আলোকিত করেছি। বিদ্যুতের জন্য মানুষকে জীবন দিতে হয়েছে। বাংলাদেশকে অশান্ত করার সব ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করতে হবে। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে হবে।

সভায় বক্তব্য রাখেন সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, সাধারণ সম্পাদক ও সিংড়া পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো. জান্নাতুল ফেরদৌস, কলম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মইনুল হক চুনু, কলম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন মুন্সিসহ আরও অনেকে

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.