ইইউ বাংলাদেশের নতুন সরকারের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী : রাষ্ট্রদূত

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
বাংলাদেশের কাঙ্খিত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে দেশের নতুন সরকারের সঙ্গে এক সাথে কাজ করতে গভীর আগ্রহ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত রেঞ্জি তেরিং এখানে আয়োজিত বাংলাদেশ-ইইউ সম্পর্ক বিষয়ক এক সেমিনারে বক্তৃতাকালে এ কথা বলেন। রাষ্টদূত বলেন, বাংলাদেশ বিগত এক বছরে ব্যাপক অর্থনৈতিক অগ্রগতি সাধন করেছে। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশের জন্য টেকসই ও অগ্রসরমান প্রবৃদ্ধি প্রয়োজন।
তিনি বলেন, আমি মনে করি কাঙ্খিত এই প্রবৃদ্ধি অর্জন করা নতুন সরকারের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ। কসমস ফাউন্ডেশন নামের একটি সংগঠন নগরীর একটি হোটেলে ‘বাংলাদেশ ই্উরোপীয় ইউনিয়ন সম্পর্ক : ভবিষ্যতের জন্য পূর্বাভাস’ শিরোনামের এই সেমিনারের আয়োজন করে। ইইউ রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের অর্থনীতির সুফল দেশের সকল মানুষের মধ্যে সমবন্টন করার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, প্রবৃদ্ধির সুফল সকলের মধ্যে সমহারে বন্টন করতে না পারলে দারিদ্র্য পুরোপুরি বিমোচন হবে না।
রাষ্ট্রদূত ২০২১ সালের মধ্যে একটি মধ্য আয়ের দেশ এবং ২০২৪ সালের মধ্যে এলডিসি’র অবস্থান থেকে বেরিয়ে আসার বাংলাদেশের ভিশন ও পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের এটি হবে একটি সাফল্যের গল্প।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পররাষ্ট্র সচিব মো. শহিদুল হক বলেন, বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যকার সম্পর্ক খুবই চমৎকার এবং বিভিন্ন বিষয়ে উভয় পক্ষই একে অপরের মঙ্গল কামনা করে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.