আঙুল ফোটালে কী হয়?

আঙুল ফোটানোর অভ্যাস কমবেশি সবার মধ্যেই আছে। কাজের ব্যস্ততায় কিংবা অবসরে অনেকে নিজের অজান্তেই আঙুল।

তবে অনেকেই বলেন আঙুল ফোটানো ঠিক নয়, এতে নাকি হাড়ের সমস্যা হয়! তবে সত্যিই কি এই অভ্যাস স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর?

প্রথমেই জেনে নিন আঙুল কীভাবে ফোটে অর্থাৎ কেন শব্দ হয়-

আঙুল ফোটানোর মাধ্যমে আঙুলের অস্থিসন্ধির দুটি ভাগের মধ্যে দূরত্ব সামন্য বাড়ে। এর ফলে গ্যাস বাবল তৈরি হয়। এই গ্যাস বাবল ফেটেই আঙুল ফোটানোর শব্দ হয়। বিশেষজ্ঞরা এই ঘটনাকে বেলুন ফোটানোর সঙ্গে তুলনা করেন।

একই আঙুল পরপর দুইবার সাধারণত ফোটে না। এর কারণ হলো আপনার আঙুলে সেই গ্যাস বাবল সঙ্গে সঙ্গে তৈরি হয় না। এজন্য কিছুটা সময়ের প্রয়োজন হয়।

আঙুল ফোটানো কি সত্যিই ক্ষতিকর?

বিশেষজ্ঞদের মতে, আঙুল ফোটানোর বিষয়টি খুবই সাধারণ। যদিও এর সঙ্গে মানসিক বা শারীরিক কোনো সমস্যার যোগ নেই। তবে দেখা গেছে, মানুষ নার্ভাস হলেই বেশি আঙুল ফোটান। এর মাধ্যমেই নাকি তারা দুশ্চিন্তা দূর করার চেষ্টা করেন!

আঙুল ফোটালে তেমন কোনো সমস্যা হয় না। তবে অনেকেরই বিষয়টি বদঅভ্যাসে পরিণত হয়। ফলে বারবার একই কাজ করতে গিয়ে ওই জয়েন্টে প্রদাহ তৈরি করে ফেলেন।

ক্যালোফোর্নিয়ার একজন চিকিৎসক নিজের উপরই এই বিষয়ক একটি পরীক্ষা করেন। তিনি সাধারণত নিজের একটি হাতের আঙুলই ফোটাতেন।

দীর্ঘদিন ওই আঙুল ফোটানোর কারণে কোনো সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে কি না তা যাচাইয়ের জন্য তিনি এক্স-রে করেন। তবে কোনো সমস্যায় কিন্তু ধরা পড়েনি।

এই প্রসঙ্গে ভারতের বিশিষ্ট মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. রুদ্রজিৎ পাল জানান, আঙুল ফোটানোর সঙ্গে হাড় ক্ষয় হওয়ার কোনো সম্পর্ক নেই। তবে এটি বদঅভ্যাসে পরিণত হলে জয়েন্টে আঘাত পেতে পারেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.