অভয়নগরে ইউপি চেয়ারম্যাকে গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন

বিশেষ প্রতিনিধি, অভয়নগর
যশোরের অভয়নগর উপজেলার ৬নং বাঘুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবুল আক্তারকে গ্রেফতারের দাবীতে এলাকাবাসি মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে উপজেলার ৬নং বাঘুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এ মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে এলাকাবাসীসহ ভুক্তভোগী ভিজিডি কার্ডধারীরাও অংশ নেয়। ভাটপাড়া বাজার কমিটির সভাপতি আতিয়ার রহমান মোল্যার সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাঘুটিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সোলায়মান হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মল্লিক শওকত হোসেন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোরশেদ আলম, আওয়ামী লীগ নেতা আকরামুজ্জামান কুদ্দুস প্রমুখ।
জানা গেছে, উপজেলার বাঘুটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধে হতদরিদ্রদের ভিজিডি চাল উত্তোলনের পর বিতরন না করে বিক্রি করে টাকা আত্মসাৎ করেন। ভুক্তভোগীরা চাল না পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্তকর্তা রিনা মজুমদারকে প্রধান করে ৩ সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি বিষয়টি তদন্ত করে চাল আত্মসাতের অভিযোগ প্রমানিত হয়। পরে তদন্ত কর্মকর্তা রিনা মজুমদার বাদী হয়ে গত ১৬ জানুয়ারী চেয়ারম্যান বাবুল আক্তারের নামে অভয়নগর থানায় মামলা করেন।
উল্লেখ্য, অভয়নগর উপজেলার বাঘুটিয়া ইউনিয়নে ভিজিডির (ভালনারেবল গ্রুপ ডেভলপমেন্ট) হতদরিদ্র ২’শ ৬০ টি পরিবারকে প্রতিমাসে ৩০ কেজি করে চাল দেয়া হয়। গত ৫/১২/১৮ তারিখে বাঘুটিয়া ইউনিয়নের জন্য ৭ টন ৮’শ কেজি চাল বিতরনের জন্য ডেলিভারী অর্ডার (ডিও) ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাবুল আক্তার গ্রহন করেন। চেয়ারম্যান বাবুল আক্তার গত ১০/১২/১৮ তারিখে নওয়াপাড়া গুদাম থেকে চাল উত্তোলন করে হতদরিদ্র ভিজিডি কার্ডধারীদের মধ্যে বিতরন না করে সমুদয় চাল বিক্রি করে দেন। জাতীয় নির্বাচনের কারনে ভুক্তভোগীরা কোন খোঁজ নেন নাই। নির্বাচনের পর জানতে পারেন চাল নির্বাচনের আগেই উত্তোলন করা হয়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.