অবশেষে হচ্ছে বিপিএলের বাইরে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট

ক্রীড়া প্রতিবেদক
বিপিএলের বাইরে একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে আলোচনা অনেক দিনের। গত মৌসুমেও নিজেদের ইচ্ছের কথা জানিয়েছিল ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। ইচ্ছে পূরণ হয়নি সেবার। অবশেষে আলোর মুখ দেখছে সেই টুর্নামেন্ট। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের দলগুলিকে নিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু হচ্ছে আগামী সোমবার।
এবারের মৌসুমের প্লেয়ার্স ড্রাফট শেষে সোমবার সংবাদ সম্মেলনে এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট শুরুর ঘোষণা দেন সিসিডিএম চেয়ারম্যান ও বিসিবি পরিচালক কাজী ইনাম আহমেদ।
মূলত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দেশের ক্রিকেটারদের আরও বেশি অভ্যস্ত করা এবং নতুন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার তুলে আনার জন্য এমন একটি টুর্নামেন্টের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছিলেন অনেকে। বিপিএল এখন নিয়মিত হলেও চার বা পাঁচ জন করে বিদেশি ক্রিকেটার খেলানোয় দেশের অনেক ক্রিকেটারই সুযোগ পান না বা খেললেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার সুযোগ পান না। তাছাড়া বিপিএলের যা বাস্তবতা, তাতে টি-টোয়েন্টিতে নতুন প্রতিভা উঠে আসার সুযোগ নেই বললেই চলে।
এসব বিবেচনা করেই গত মৌসুমে আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের কথা বলেছিল বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। সিসিডিএম চেয়ারম্যানও জানিয়েছিলেন প্রবল আগ্রহের কথা। সেবার না পারার কথা স্বীকার করেই এবার শুরুর ঘোষণা দিলেন কাজী ইনাম।
“আমাদের ইচ্ছে ছিল, গতবারও চেষ্টা করেছিলাম আমরা, শেষ পর্যন্ত পারিনি। তবে এবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের আগে ছোটো আকারে একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট করছি। ১২টি দলকে চারটি গ্রুপে ভাগ করা হবে। ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলি হবে। সেমি-ফাইনাল দুটি হবে ১ মার্চ। ফাইনাল ৩ মার্চ।”

টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলির ভেন্যু এখনও চূড়ান্ত নয়। তবে ফাইনাল ম্যাচটি ফ্লাড লাইটে হবে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে।
শুধু স্থানীয় ক্রিকেটাররাই খেলতে পারবেন এই টুর্নামেন্টে, কোনো বিদেশি ক্রিকেটার খেলানোর সুযোগ থাকবে না।
বিপিএলের মতো এই টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলিরও অফিসিয়াল টি-টোয়েন্টির মর্যাদা পাওয়াতে বিসিবি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে জানালেন সিসিডিএম চেয়ারম্যান। চেষ্টা করা হবে টিভিতে সরাসরি স¤প্রচারের; তবে তা এখনও নিশ্চিত নয়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.