সংক্রমণ ঠেকাতে ফ্লাইটে মাস্ক পরার পরামর্শ ডব্লিউএইচওর

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রনের সাব ভ্যারিয়েন্ট। তাই ভাইরাস মোকাবিলায় দেশগুলোর যাত্রীদের দীর্ঘ ফ্লাইটে মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও)।

এদিকে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ডব্লিউএইচও-এর ইউরোপীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইউরোপের এক্সবিবি.১.৫ সাব ভ্যারিয়েন্ট ছোট হলেও ক্রমবর্ধমান বলে শনাক্ত হয়েছে। তাই ইউরোপের ক্ষেত্রেও বিধি মেনে চলা দরকার।

ইউরোপে দায়িত্বে থাকা ডব্লিউএইচও-এর সিনিয়র জরুরি কর্মকর্তা ক্যাথরিন স্মলউড বলেছেন, দূরপাল্লার ফ্লাইটগুলো মতো উচ্চ-ঝুঁকিপূর্ণ সেটিংসে যাত্রীদের মাস্ক পরার পরামর্শ দেওয়া উচিত। এমনকি যেকোনো জায়গা থেকে আসা যাত্রীদের এই নিয়ম মেনে চলা উচিত। তাহলে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়বে না।

ওমিক্রনের এক্সবিবি.১.৫ সাব ভ্যারিয়েন্ট সবচেয়ে বেশি সংক্রমণযোগ্য বলে শনাক্ত হয়েছে। স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ৭ জানুয়ারি শেষ হওয়া সপ্তাহে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনার ২৭.৬ শতাংশ সংক্রমণ ছড়ানোর জন্য দায়ী এ ভ্যারিয়েন্ট।

ক্যাথরিন স্মলউড আরও বলেন, সংক্রমণ ঠেকাতে যদি দেশগুলোতে গুরুতর পদক্ষেপ নেওয়া হয়, তবে ভ্রমণের বিধিগুলো মানতে কোনো বৈষম্য রাখা ঠিক নয়।

এর অর্থ এই নয় যে, সংস্থাটি এই পর্যায়ে শুধু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা যাত্রীদের জন্য পরীক্ষা করার সুপারিশ করেছে, তিনি যোগ করেছেন।

শেয়ার করুন: