June 12, 2024
ফিচার

পুরুষের চেয়ে নারীর মস্তিষ্ক ছোট হওয়ার কারণ কী?

মস্তিষ্ক ছাড়া মানুষ একটি পশুর মতো। প্রাণিজগতের মধ্যে মানব মস্তিষ্কই সবচেয়ে জটিল। প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মস্তিষ্কের আয়তন পুরুষের প্রায় ১৫০০ সিসি ও নারীদের প্রায় ১৩০০ সিসি।

নারী-পুরুষের মধ্যে কার মস্তিষ্ক বড়? এ বিষয়ে উত্তর দিয়েছেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা।

কেমব্রিজ ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এমআরআই-এর মতো পরীক্ষা ব্যবহার করে নারী ও পুরুষের মস্তিষ্কের আকার তুলনা করেছেন। তারা দেখেছেন, পুরুষদের মস্তিষ্ক নারীদের তুলনায় ৮-১৩ শতাংশ বেশি।

নারীদের মস্তিষ্ক ছোট হওয়ার কারণ কী?

গবেষণায় দেখা গেছে, নারী ও পুরুষের মস্তিষ্কের আকারের পার্থক্য শারীরিক গঠনের কারণে। সাধারণভাবে পুরুষের উচ্চতা নারীর তুলনায় বেশি হয়, যার কারণে তাদের মস্তিষ্কের আকারও প্রভাবিত হয়।

তবে নারীদের মস্তিষ্ক ছোট হলেও গবেষণায় দেখা গেছে, তাদের ইনসুলার কর্টেক্স পুরুষদের তুলনায় বড়। মস্তিষ্কের এই অংশ আবেগ, দৃষ্টিভঙ্গি, যুক্তি ও আত্ম-সচেতনতার সঙ্গে জড়িত। এটিও নারীদের বেশি আবেগপ্রবণ হওয়ার পেছনে কারণ হতে পারে।

অন্যদিকে পুরুষদের অ্যামিগডালে বড় হয়। মস্তিষ্কের এই অংশ মোটর দক্ষতা ও বেঁচে থাকা-ভিত্তিক আবেগের জন্য দায়ী বলে মনে করা হয়। যার কারণে পুরুষদের মধ্যে উপভোগ করার ক্ষমতা, শারীরিক পরিশ্রম, শেখা ও মনে রাখার ক্ষমতা বেশি দেখা যায়।

তেবে নর্থওয়েস্টার্ন মেডিসিনের তথ্য বলছে, নারীদের মধ্যে বিষণ্নতা, আলঝেইমার, মাল্টিপল স্ক্লেরোসিস ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বেশি। এজন্য তাদের এসব রোগ সম্পর্কে আরও সচেতন হতে হবে।

অন্যদিকে পুরুষদের মুখোমুখি হওয়া স্বাস্থ্য সমস্যার ঝুঁকি পরিবর্তিত হয়। তারা অ্যালকোহল আসক্তি, অসামাজিক ব্যক্তিত্বের ব্যাধি, অটিজম ও পারকিনসন্সের উচ্চ ঝুঁকিতে আছে।

শেয়ার করুন: