June 23, 2024
লাইফস্টাইললেটেস্ট

গুছিয়ে রাখুন শখের জুতো

যেকোনো ঘরের দরজার সামনে এলোমেলো জুতো দেখলেই মনটা খারাপ হয়ে যায়। অন্দরের সৌন্দর্য শুরুতেই নষ্ট। তবে শুধু অন্দরের সৌন্দর্যই ক্ষতির মুখে তা কিন্তু নয়। শৌখিন হোক বা রোজকার ব্যবহারের জুতা, সঠিক যত্নের অভাবে কমতে থাকে তার উজ্জ্বলতা। অনেক সময় বাড়ির প্রবেশপথের সামনে স্তূপীকৃত হয়ে থাকতে দেখা যায় সেগুলোকে। ভালো শু-র‍্যাক যেমন জুতার শেলফ-লাইফ বাড়িয়ে তোলে, তেমনই ঘরকেও দিতে পারে সৌন্দর্য ও নান্দনিকতার স্পর্শ।

প্রথমেই শৌখিন, বাইরে পরার, প্রতিদিনের ব্যবহৃত ও ঘরে পরার জুতা আলাদা করুন। বাতিল, ছোট হয়ে যাওয়া জুতাগুলো বিদায় করে দিন। এর পরের কাজ, শু ক্যাবিনেট বাছাই করা।

ডোর বা ক্লোজেট রড
এই ধরনের শু ক্যাবিনেট কম জায়গা সম্পন্ন বাড়ির জন্য আদর্শ। দরজার পেছনের দিকে রলাড গিয়ে নিলেই শু অর্গানাইজার তৈরি হয়ে যাবে।

শু শেলফ
শৌখিন জুতার জন্য এই ধরনের শেলফ ব্যবহার করতে পারেন। বসার ঘরে, এমনকি বেডরুমেও এই শু অর্গানাইজার তৈরি করতে পারেন। লেদারের জুতার ক্ষেত্রেও এ ধরনের অর্গানাইজার শ্রেষ্ঠ। এতে জুতার স্থায়িত্ব বজায় থাকে।

ফ্রি স্ট্যান্ডিং র‍্যাকস
ফ্ল্যাটের কোণে এই ধরনের স্ট্যান্ড ব্যবহার করতে পারেন। অনেক ক্ষেত্রেই ফ্ল্যাট বা বাড়ির এই জায়গা অবহেলিত থাকে। সেখানে এলোমেলো জুতোর মেলা বসে যায়। সেক্ষেত্রে এ ধরনের র‍্যাক ব্যবহার করতে পারেন। স্থান সংকুলান হলে বিছানার নীচেও পছন্দের জুতো বা বুট রেখে দিতে পারেন। বাজারে এ রকম প্লাস্টিক বা স্টিলের শু অর্গানাইজার বেশ সহজলভ্য।

শেয়ার করুন: