April 20, 2024
আন্তর্জাতিকলেটেস্ট

অস্ত্রের প্রতিশ্রুতি মিলতেই জার্মানিতে জেলেনস্কি, পুরস্কারও নেবেন

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এখন বার্লিনে অবস্থান করছেন। সেখানে তিনি জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস এবং প্রেসিডেন্ট ফ্রাংক-ওয়াল্টার স্টেইনমায়ারের সঙ্গে আলোচনা করবেন। রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের পর জার্মানিতে এটি তার প্রথম সফর।

জার্মানি কিয়েভকে প্রায় ৩০০ কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্র সরবরাহ করার ঘোষণা দেওয়ার এক দিন পরই জেলেনস্কি জার্মানি সফর করছেন। জেলেনস্কিকে রবিবার একটি মর্যাদাপূর্ণ সম্মান—শার্লেমেন পুরস্কার প্রদান করা হবে। পুরস্কারটি ইউরোপীয় ঐক্যের প্রচারে সবচেয়ে বেশি কাজ করে—এমন ব্যক্তিদের স্বীকৃতি দেয়। এর আগে উইনস্টন চার্চিল, পোপ ফ্রান্সিস এবং বিল ক্লিনটন এ পুরস্কার পেয়েছেন।

জার্মানিতে পৌঁছে জেলেনস্কি টুইট করেন, ‘ইতিমধ্যে বার্লিনে। অস্ত্র। শক্তিশালী প্যাকেজ। বিমান প্রতিরক্ষা। পুনর্গঠন। ইইউ। ন্যাটো। নিরাপত্তা।’

শনিবার জার্মানি ইউক্রেনের জন্য তার সবচেয়ে বড় সামরিক সহায়তা প্যাকেজ উন্মোচন করেছে। বার্লিন বলেছে, তারা কিয়েভকে লেপার্ড ট্যাংক এবং বিমানবিধ্বংসী ব্যবস্থাসহ ২৪০ কোটি ইউরো মূল্যের অস্ত্র সরবরাহ করবে।

নিরাপত্তার কারণে জার্মান সরকার জেলেনস্কির গতিবিধি সম্পর্কে তেমন কোনো বিশদ বিবরণ প্রকাশ করেনি। তবে তিনি ইতিমধ্যে জার্মান প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দেখা করেছেন এবং পরে চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎসের সঙ্গে আলোচনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

জার্মান গণমাধ্যম আরো জানিয়েছে, বিকেলে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি শার্লেমেন পুরস্কার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর আচেনে যাবেন।

জার্মান বিমানবাহিনীর দুটি যুদ্ধবিমানের পাহাড়ায় ইউক্রেনের নেতার বিমান বার্লিনে পৌঁছয়। প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি শনিবার ইতালিতে একটি সফরের পরে সেখানে থেকে উড়ে গেছেন। সে সফরে তিনি সে দেশের প্রেসিডেন্ট সার্জিও মাতারেল্লা, প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনির সঙ্গে দেখা করেছেন। এ ছাড়াও ভ্যাটিকানে পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে একটি ব্যক্তিগত আলোচনায় অংশ নিয়েছেন।

শেয়ার করুন: