দুঃসময়ে সাকিবের দিকে তাকিয়ে বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক

চতুর্থদিনের শুরু এবং শেষের বৃষ্টির আগে বড় একটা তুফান সামাল দিতে হলো বাংলাদেশকে। লম্বা ব্যাটিং-লাইন আপ সত্তে¡ও আফগান স্পিনারদের বিপক্ষে ব্যর্থ টাইগাররা। এখন নিজেদের ঘরে নিজেরাই আত্মঘাতি হতে বসেছে বাংলাদেশ।

তবে পরাজয় এড়ানোর আশা ছাড়ছে না স্বাগতিকরা। কারণ পথটা যতোই দূর্গম হোক না কেন, এখনো ব্যাটিংয়ে আছেন সাকিব আল হাসান ও সৌম্য সরকার। পঞ্চমদিনে এই দুইজনের দিকে তাকিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। শেষ দিনে বেন স্টোকস হয়ে বাংলাদেশকে জেতাতে পারবেন তো সাকিব? সেই প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে মাথায়। কিন্তু সামনে সে ২৬২ রানের বিশাল পর্বত!

জিততে হলে এই রান যে করতে হবে টাইগারদের। নয়তো টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া সেই দিনের আফগানদের বিপক্ষে বড় হারের লজ্জায় পড়তে হবে সাকিবদের।

গতকাল রবিবার চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে বৃষ্টির কারণে চতুর্থদিন শুরু হয় দুই ঘণ্টা দেরিতে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ উইকেটে ২৩৭ রান নিয়ে দিন শুরু করা আফগানদের ২৬০ রানে অলআউট করে দেয় টাইগাররা। বাংলাদেশের সামনে টার্গেট দাঁড়ায় ৩৯৮ রানের।

দ্বিতীয় ইনিংসে বিশাল এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে টাইগাররা প্রথম হোঁচট খায় দলীয় ৩০ রানে। ব্যক্তিগত ৯ রানে নেই লিটন দাশ। প্রথম ইনিংসে আটে ব্যাট করে সফল হয়েছেন বিধায় হয়তো মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এবার নামলেন তৃতীয় নাম্বারে। শুরুটাও চমৎকার করেছিলেন। কিন্তু জহির খানের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফেরত যান মোসাদ্দেক (১২)।

এরপর বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের অন্যতম দুই ভরসা মুশফিকুর রহিম (২৩) ও মুমিনুল হককে (৩) এলবিডব্লিউ’র ফাঁদে ফেলেন রশিদ খান। সতীর্থরা ব্যর্থ হলেও লড়াই করছিলেন ওপেনার সাদমান ইসলাম। কিন্তু মোহাম্মদ নবীর ঘূর্ণি ঠিকমতো বুঝতে না পেরে ফেরত যান তিনিও। সাদমানের ১১৪ বলে ৪১ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৪ চারে।

অভিজ্ঞ ব্যাটসমান মাহমুদউল­াহ রিয়াদও (৭) ব্যর্থ হলেন দুঃসময়ে দলের হাল ধরতে। এখন ভরসা কেবল অধিনায়ক সাকিব। বাঁচতে হলে শেষদিনে অলৌকিক কিছু করে দেখাতে হবে সাকিব-সৌম্যকে।  বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময়ের পূর্বে মাঠ ছাড়ার আগে চতুর্থদিনে ৪৪.২ ওভারে ৬ উইকেটে ১৩৬ রান করেছে বাংলাদেশ। ব্যাটিংয়ে আছেন সাকিব (৩৯) ও সৌম্য (০)। আফগানিস্তান প্রথম ইনিংসে করে ৩৪২ রান। বাংলাদেশ করে ২০৫ রান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *