March 3, 2024
খেলাধুলা

বৃষ্টি আইনে কিউইদের কাঁদিয়ে পাকিস্তানের রেকর্ড জয়

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে টিকে থাকার লড়াইয়ে আজ মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি পাকিস্তান। আজকের ম্যাচ জিতলেই বাবর আজমদের শেষ চারে যাওয়ার রাস্তা সহজ হয়ে যাবে। এমন ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তানে সামনে ৪০১ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য দাঁড় করায় কিউইরা। এমন পাহাড়সম রান তাড়া করতে নেমে বাবরা জিতবে তা হয়তো গোটা ক্রিকেট প্রেমী ভাবেননি। তবে দলটা আনপ্রেডিক্টেবল ঠিকই জয় তুলে নিয়েছে। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচটিতে ২১ রানের জয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে বাবরের দল।

এখন ৪ জয়ে পাকিস্তানের পয়েন্ট ৮। তারা এখন আছে পাঁচ নম্বরে। একইসঙ্গে দুশ্চিন্তা বাড়ল নিউজিল্যান্ডের কপালে। যদিও পয়েন্ট টেবিলে রান রেটে এগিয়ে কিউইরাই। তারা আছে চতুর্থ স্থানে। পাকিস্তান পঞ্চমে।

কিউইদের ৪০২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে পাকিস্তানের হয়ে ইনিংস শুরু করতে আসেন আবদুল্লাহ শফিক ও ফখর জামান। তবে শুরুটা ভালো হয়নি ম্যান ইন গ্রিনদের। রান তাড়া করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই সাজঘরে ফেরেন আবদুল্লাহ শফিক। ৪ রান করেন তিনি। তবে এই ধাক্কার পর আর পেছনে দিকে তাকায়নি বাবরা। ফখর জামান ও বাবর আজম রান তুলতে থাকেন দুরন্ত গতিতে। চিন্নাস্বামীর একপ্রান্তে ব্যাট হাতে ঝড় তুলে কিউই বোলারদের তুলোধুনো করে মাত্র ৬৩ বলে সেঞ্চুরি করেছেন ফখর। অন্যপ্রান্তে বাবরও দেন যোগ্য সঙ্গ। তিনি ৫২ বলে পূরণ করেন অর্ধশতক।

তাদের ঝড়ো ইনিংসের মধ্যে ব্যাঙ্গালুরুর আকাশ ভেঙে বৃষ্টি নামে। পরে বৃষ্টির কারণে লক্ষ্য কমে দাঁড়ায়। প্রথমবার বৃষ্টি শেষে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪১ ওভারে ৩৪২ রান। সেটিও বেশ ভালোভাবেই পার করেছে আনপ্রেডিক্টেবলরা। তবে দ্বিতীয়বার বৃষ্টিতে ম্যাচ বন্ধের পর আর খেলা হয়নি। ফলে ডার্ক ওয়ার্থ লুইস পদ্ধতি অনুযায়ী ২৫.৩ ওভারে পাকিস্তানকে ১৭৯ করলেই চলতো। তবে তারা ২১ রানে এগিয়ে ছিল। শেষপর্যন্ত আর খেলা না হওয়ায় বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় ২১ রানের অবিশ্বাস্য এক জয়ের দেখা পেয়েছে পাকিস্তান।

আগে ব্যাট করতে নেমে পাওয়ার প্লেতে বিনা উইকেটে ৬৬ রান তুলে দুই ওপেনার ডেভন কনওয়ে ও রাচিন রবীন্দ্র। ১১তম ওভারে কনওয়েকে ফিরিয়ে হাসান আলী পাকিস্তান শিবিরে স্বস্তি এনে দেন। এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দলের রানের চাকা সচল রাখেন কেন উইলিয়ামসন ও রাচিন।

দুই টপ অর্ডার মিলে পাকিস্তানি বোলারদের উপর চড়াও হন। তাদের দুজনের বিধ্বংসী ব্যাটিং বড় সংগ্রহের ভীত গড়ে দেয়। ১৮০ রানের বিশাল জুটি ভাঙেন স্পিনার ইফতিখার আহমেদ। ৫ রানের আক্ষেপ নিয়ে ৯৫ রান করে শতক বঞ্চিত হন কেন উইলিয়ামসন। কিউই অধিনায়ক শতকের দেখা না পেলেও ওপেনার রবীন্দ্র ঠিকই তুলে নিয়েছেন এবারের বিশ্বকাপে নিজের তৃতীয় শতক। ৯৪ বলে ১০৮ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে মোহাম্মদ ওয়াসিমের শিকার হন এই বাঁহাতি ব্যাটার।

শেষ দিকে ব্ল্যাকক্যাপসদের রানের চাকা সচল রাখেন ড্যারেল মিচেল, মার্ক চ্যাপম্যান ও গ্লেন ফিলিপ্স। এই তিন মিডেল অর্ডার ব্যাটারের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে বড় রানের দিকে এগিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত ফিলিপসের ২৫ বলে ৪১ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৪০১ রান সংগ্রহ করে উইলিয়ামসনের দল। কিউইদের হয়ে সর্বোচ্চ ১০৮ রান করেন রবীন্দ্র। পাকিস্তানের হয়ে ৩টি উইকেট নেন মোহাম্মদ ওয়াসিম।

শেয়ার করুন: