March 3, 2024
আঞ্চলিকলেটেস্টশীর্ষ সংবাদ

বটিয়াঘাটায় তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ৩ জন আটক

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি
বটিয়াঘাটা উপজেলার কৈয়া বাজার এলাকায় দস্যুতা ও বাগদত্তা তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ৩ জনকে আটক করেছে কেএমপির হরিণটানা থানা পুলিশ। গত সোমবার গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা ওই এলাকার প্রবন কুমার মল্লিকের বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটায়।


ঘটনাসূত্রে জানা যায়, ঐ দিন মধ্যরাতে যে কোন সময় দুর্বৃর্ত্ত্বরা একতলা বাড়ীর জানালার গ্রিল বেয়ে প্রথমে ছাদে উঠে এবং উপরে থাকা ছাদ রুমের জানালার গ্রিলের রড কেটে ভিতরে প্রবেশ করে চেতনানাশক স্প্রে ব্যবহার করে ঐ ভুক্তভোগী তরুণীর বাবাকে অচেতন করে এবং মাকে লেপ পেচিয়ে বেঁধে রান্নাঘরে রাখে। তারপর ঐ যুবতীকে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে ও ঘরে থাকা নগদ টাকাসহ স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায়। সকালে ঐ যুবতীর বাবার জ্ঞান ফিরে এলে তিনি তার ভাইকে ফোন করে ডেকে নেয়। খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে খবর পেয়ে কেএমপির পুলিশ কমিশনার মোজ্জাম্মেল হকসহ প্রসাশনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ ঘটনাস্থলে আসেন এবং ভুক্তভোগীদের উদ্ধার করে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন। ভুক্তভোগীরা খুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এ ঘটনায় হরিণটানা থানা পুলিশ লুণ্ঠিত স্বর্ণসহ ৩ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। আটকৃতরা হলো ডুমুরিয়া থানার কুলটি গ্রামের সুনিতী ফৌজদারের ছেলে গোবিন্দ ফৌজদার (৩০), কৈয়া বাজারের খুকু জুয়েলার্সের মালিক ধীমান ফৌজদার (৩৫) এবং বটিয়াঘাটার গঙ্গারামপুর গ্রামের চিত্তরঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে মিঠুন বিশ্বাস (৩৫)। আটকৃত আসামীরা থানা পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

‌দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ জে এফ জয়

শেয়ার করুন: