তাইওয়ানকে পৃথক দেশ বলে ক্ষমা চাইলেন জন সিনা

তাইওয়ানকে পৃথক দেশ বলার পর চীনের জনসাধারণের কাছে ক্ষমা চাইলেন মার্কিন কুস্তিগীর ও ফাস্ট এন্ড ফিউরিয়াস চলচ্চিত্রের তারকা জন সিনা। মঙ্গলবার তাইওয়ানের একটি টেলিভিশনে নিজের নতুন সিনেমা ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস-৯ এর একটি প্রমোশনাল অনুষ্ঠানে গিয়ে তাইওয়ানকে পৃথক দেশ বলে উল্লেখ করেন তিনি। এরপরই শুরু হয় বিতর্ক। বিষয়টি চরমভাবে আলোচনায় আসে চীনসহ সারাবিশ্বে।

পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসে নিজের ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি। জন সিনা বলেন, তিনি চীনকে ভালোবাসেন এবং চীনের প্রতি তার সম্মান রয়েছে। তিনি আরও বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ফলোয়ারদের একটা বড় অংশই চীনের নাগরিক।

বিগত এক দশক ধরে মান্দারিন ভাষা শিখছেন জন সিনা। তাই টিভি অনুষ্ঠানে গিয়ে নিজের ভাষাজ্ঞান যাচাই করতে চেয়েছিলেন তিনি। তখনই বাধে গণ্ডগোল। ভুল করে তাইওয়ানকে দেশ বলে ফেলেন তিনি।

মূলত তাইওয়ানকে পৃথক রাষ্ট্র হিসেবে মানে না চীন। যদিও বিশ্বে এ নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। স্বতন্ত্র সরকার রয়েছে তাইওয়ানে। তবুও তাইওয়ানকে কেউ আলাদা দেশ বললে, তাকে চীন শত্রু হিসেবে বিবেচনা করে। আর সেই ভুলটাই করে বসেছিলেন জন সিনা।

এফ নাইন ছবিটি চীনের বক্স অফিসে সুপার ডুপার হিট। ২১ মে চলচ্চিত্রটি চীনে মুক্তি পায়। মঙ্গলবার পর্যন্ত শুধু চীন থেকেই ১৫৫ মিলিয়ন ডলার উপার্জন করেছে ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস-৯।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *