খুলনার বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয় রংপুরের

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের নবম আসরের ঢাকা পর্বের ম্যাচ শেষে আজ চট্টগ্রাম পর্বের খেলা মাঠে গড়িয়েছে। সাগরিকার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামে খুলনা টাইগার্স ও রংপুর রাইডার্স। ম্যাচে ইয়াসির রাব্বির দলকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে নুরুল হাসান সোহানের রংপুর রাইডার্স।

ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন রংপুর অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় খুলনা। দলের তারকা ব্যাটার তামিম ইকবাল মাত্র এক রান করে সাজঘরে ফিরেন। এরপর দলীয় ১৮ রান সার্জিল খান ও হাবিবুর সোহানকে হারায় দলটি। দ্রুত তিন উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে বসা খুলনাকে এরপর খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলেন অধিনায়ক ইয়াসির রাব্বি ও আজম খান।

এই দুই ব্যাটার মিলে গড়েন ৫৮ রানের জুটি। তবে ২২ বলে ২৫ রান করে ইয়াসির সাজঘরে ফিরলে আবারও চাপে পড়ে খুলনা। নিয়মিত বিরতিতে দ্রুত উইকেট হারাতে থাকে তারা। সবশেষ সাইফুদ্দিনের ২২ ও নাহিদুলের ১৫ রানে ভর করে ১৯.৩ ওভার শেষে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৩০ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় খুলনা টাইগার্স।

দলটির হয়ে সর্বোচ্চ ৩৪ রান আসে আজম খানের ব্যাট থেকে। রংপুরের হয়ে চারটি উইকেট নেন রবিউল হক। দুইটি করে উইকেট নেন হাসান মাহমুদ, রাকিবুল ও ওমরজাই।

১৩১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় রংপুর রাইডার্স। দলীয় এক রানে রনি তালুকদারকে হারায় দলটি। এরপর সাইম আইয়ুব ও মেহেদী হাসান মিলে গড়েন ২১ রানের জুটি। ১২ বলে ১৪ রান করে মেহেদী ফিরলে দ্রুতই সাজঘরে ফিরেন সাইম।

এরপর মোহাম্মদ নাইম ও পাকিস্তান তারকা শোয়েব মালিক ম্যাচের হাল ধরেন। ইনিংসের শেষভাগে শামীম হোসাইনের অপরাজিত ১৬ রানে ভর করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রংপুর রাইডার্স। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন শোয়েব মালিক।

খুলনার হয়ে দুইটি করে উইকেট নেন সাইফুদ্দিন, ওয়াহাব রিয়াজ ও নাসুম আহমেদ।

শেয়ার করুন: