কমলাপুর রেলস্টেশনে টিকিট না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নারী যাত্রীরা

কমলাপুর রেলস্টেশনে টিকিট না পেয়ে ম্যানেজারের রুমে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নারী যাত্রীরা। তারা বলছেন, রাতভর কমলাপুর রেলস্টেশনে লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করেছেন, তবুও মেলেনি ঈদের আগাম টিকিট। অল্প কয়েকজনকে দেওয়ার পর টিকিট শেষ হয়ে গেছে।

রোববার (৩ জুলাই) সকাল ১০টায় কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজারের রুমে টিকিট না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন কিছু নারী।

তাদের একজন বলেন, গতকাল (শনিবার) থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছি। এরপরেও টিকিট পাইনি। নারীদের লাইনে খুব কম টিকিট দেওয়া হচ্ছে। আমাদের একজনকে দিতে পুরুষদের ৫-৬ দেওয়া হয়ে যাচ্ছে।

আরেক নারী বলেন, এতগুলা নারীর জন্য মাত্র একটা কাউন্টার। তার উপর এখানে প্রতিবন্ধীদেরকেও টিকিট দেওয়া হচ্ছে। এটা আমাদের উপর জুলুম করা হচ্ছে। এত কষ্ট করেও টিকিট না পেলে আমরা বাড়ি যাব কিভাবে!

এদিকে আজ সকাল ৮টা থেকে ঈদযাত্রার ৭ তারিখের টিকিট দেওয়া হচ্ছে। বরাবরের মতো আজকেও কাউন্টারের পাশাপাশি অর্ধেক টিকিট মিলছে অনলাইন ও অ্যাপে। ৮ জুলাইয়ের টিকিট ৪ জুলাই এবং ৯ জুলাইয়ের টিকিট ৫ জুলাই বিক্রি হবে।

এছাড়া ১১ জুলাইয়ের ট্রেনের ফিরতি টিকিট ৭ জুলাই, ১২ জুলাইয়ের টিকিট ৮ জুলাই, ১৩ জুলাইয়ের টিকিট ৯ জুলাই এবং ১৪ ও ১৫ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি করা হবে ১১ জুলাই। অনলাইন টিকিটের অর্ধেক ওয়েবসাইটে এবং অর্ধেক অ্যাপে বিক্রি করা হচ্ছে।

এবার ঈদুল আজহা উপলক্ষে যাত্রীদের সুবিধার্থে ৬ জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করা হবে। সেগুলো হলো- দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল, চাঁদপুর স্পেশাল ১, ২, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম (পঞ্চগড়) ঈদ স্পেশাল, শোলাকিয়া স্পেশাল ১, ২।

এছাড়া, আগামী ৬ জুলাই থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত ঢাকামুখী একতা, দ্রুতযান, পঞ্চগড়, নীলসাগর, কুড়িগ্রাম, লালমনি ও রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনগুলোর বিমানবন্দর স্টেশনে যাত্রাবিরতি থাকবে না। আগামী ৬ থেকে ১৪ই জুলাই পর্যন্ত মিতালি এক্সপ্রেস এবং ৭ থেকে ১৪ই জুলাই পর্যন্ত মৈত্রী এক্সপ্রেস ও বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল করবে না।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.