নুসরাত ফারিয়া যানজোটের সমাধান দিয়েছিলেন ১০ বছর আগে!

সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশ টেলিভিশনে অনুষ্ঠিত এক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বক্তব্য রাখছেন তিনি। গায়ে আছে স্কুলের পোশাক। কথা বলছেন দেশের যানজট সমাধানের উপায় নিয়ে।
ভিডিওতে দ্যর্থহীন কণ্ঠে আঙুল উঁচিয়ে ফারিয়া বলছিলেন, ‘বন্ধুরা আমার দেশের যানজট নিরসনের জন্য কোনও দেবদূতের প্রযোজন নেই। আমরা সাধারণ মানুষই পারি এই যানজট নিরসন করতে। এরজন্য দরকার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর যথাযথ মনিটরিং।’
জানা গেছে, নুসরাত ফারিয়ার এই বক্তব্যের বয়স প্রায় ১০ বছর! অর্থাৎ ১০ বছর আগেই ফারিয়া তুলে ধরেছিলেন যানজট নিরসনের সহজ পথ! এটিই মূলত যানজট বৃদ্ধির প্রথম ও প্রধান কারণ- বিশেষজ্ঞসহ সাধারণ মানুষ এখনও তেমনটাই মনে করেন। যেটির বাস্তবায়ন আজও হয়নি বলেই মনে করছেন তারা।
কারণ, এখনও যানজটে নাকাল হয়ে আছে শহরবাসী। এমন সময়ে নুসরাত ফারিয়ার এমন বক্তব্য আমজনতার কাছে ‘মনের কথা’র মতোই ধরা দিলো। তাই তো ১০ বছরের পুরনো ভিডিওটি এখন ভাইরাল হচ্ছে অন্তর্জাল দুনিয়ায়। তবে ভিডিওর সেই ছোট্ট কিশোরী যে সত্যি সত্যি আজকের নায়িকা নুসরাত ফারিয়া, সে বিষয়ে অস্পষ্টতা ছিল মানুষের মনে। এ নিয়ে সম্প্রতি তিনি অসংখ্য প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন ফেসবুকে-ইনবক্সে-মুঠোফোনে।


অবশেষে আজ (৫ ফেব্রুয়ারি) নিশ্চিত করেন তিনি নিজেই। বললেন, ‘ইয়েস দিস ইজ মি।’
এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যখন আমি ক্লাস নাইন অথবা টেন-এ পড়ি তখনকার বক্তব্য এটি। ২০০৯ অথবা ১০ সালের কথা বলছি। তখন জাতীয় টেলিভিশন বিতর্ক প্রতিযোগিতার ফাইনালে এই বক্তব্য দিচ্ছিলাম। এই প্রতিযোগিতায় আই বিকাম দ্য বেস্ট স্পিকার!’
ফারিয়া আরও জানান, তিনি তখন রাজধানীর শহীদ বীরউত্তম লেঃ আনোয়ার গার্লস কলেজ-এর শিক্ষার্থী ছিলেন। সেদিনের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় তাদের দলই জয়লাভ করে।
বললেন, ‘সেদিনের টপিক ছিল যানজট নিরসনের উপায় নিয়ে। সে টপিকের যুক্তিখণ্ডনের চেষ্টা করছিলাম (ভিডিওর অংশতে)। তো প্রায় ১০ বছর আগের সেই ভিডিও সাডেনলি মানুষ ফেসবুকে শেয়ার দেয়া শুরু করলো। বেশিরভাগই কনফিউজড- ঐ মেয়েটি আমি কি না! তাদের সবাইকে নিশ্চয়তা দিয়ে বলছি, ইয়েস দিস ইজ মি। আজ থেকে অলমোস্ট টেন ইয়ার্স ব্যাক! স্মৃতিকাতর হয়ে গেলাম।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *